Alejandro Menéndez
featured post ক্রীড়া ফুটবল সূচনা

“আমি দলের হেড কোচ, যেটা ভালো মনে হয়েছে করেছি”

Focal Point:

  • East Bengal Head Coach Alejandro Menéndez On Kolkata Derby

মরশুমের প্রথম ডার্বি গোল শূণ্য ভাবে শেষ হতে কিছুটা নিরাশ লাল হলুদ গ্যালারী। গার্সিয়া কে নয়নের মণি করে মাঠে আসা হাজারো সমর্থকের একটাই ভাবনা, ‘কোলার্ড ও বিদ্যাসাগর যদি প্রথম থেকে মাঠে নামতো, তালে হয়তো এই মোহনবাগান-কে আটকে দেওয়া সম্ভব হতো’। কিন্তু এই দুজন ম্যাচ উইনারকে রবিবার ৭০ মিনিটের পরে মাঠে নামালেন আলেহান্দ্র। তবে খেলা শেষে সাংবাদিক বৈঠকে যার সম্পূর্ণ ব্যাখ্যা দেন লাল হলুদ কোচ। গার্সিয়া বলেন,

“ইতিমধ্যে দলে চার বিদেশি রয়েছে, তাই ভারসাম্য রক্ষা করে মাঠে দল নামানো ছিল আমার একমাত্র লক্ষ্য, একজনকে রিজার্ভ বেঞ্চে রাখতে হতো, সেই মতো ছক কসেছিলাম”।

তবে বিদ্যাসাগর প্রসঙ্গে এক কথায় লাল হলুদ কোচ জানান,

আমি দলের হেড কোচ, তাই মাঠে দল সাজানোর দায়িত্ব থাকে আমার কাঁধে, একসাথে তো ১১ জন খেলোয়াড়ের বেশি খেলানো সম্ভব নয়, তাই যেটা ভালো মনে হয়েছে করেছি”।

তবে ক্রীড়া মহলের যুক্তি,

গার্সিয়া হয়তো এটা ভেবেছিলেন যে সবুজ মেরুন কোচ প্রথম থেকেই কোলার্ড কে আটকানোর ছক করে মাঠে দল নামাবেন, সেই ভাবনা থেকে খেলার শুরুতে কোলার্ড-র পরিবর্তে মার্কোস-কে বেছে নেওয়া”। “কারন অচেনা মার্কোস কে বুঝতে না পেরে সমস্যায় পড়বে মোহনবাগানের রক্ষণভাগ”। “সেখানে বাজিমাত করা সম্ভব হবে”।

যদিও এদিন লাল হলুদ জার্সিতে মাঠে নেমে এক কথায় ফ্লপ ইস্টবেঙ্গলে নাম লেখানো এই নতুন স্প্যেনিয় স্ট্রাইকার। যদিও বিষয়টি মানতে একেবারে নারাজ কোচ গার্সিয়া। তিনি বলেন,

“মার্কোস কে যে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল, ও তা পালন করতে সফল হয়েছে”। “আর কয়েকটা দিন গেলে বাংলার ময়দানে ও নিজেকে সম্পূর্ণ মেলে ধরতে সক্ষম হবে”।

Alejandro Menéndez On Kolkata Derby

লাইক করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com 

ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News

সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল Nabadin News

সাম্প্রতিক শিরোনাম:

অনুসরণঃ

#Kolkata #Sports #Football #East Bengal

পাঠকের প্রতিক্রিয়া একান্ত কাম্য । নিচে কমেন্ট বক্সে জানান আপনার মতামত