featured post লোকনীতি ও গণতন্ত্র

বিজেপি তে পদোন্নতির অপেক্ষা মুকুল রায়ের

গত বছরের নভেম্বরে দল ত্যাগ করে তৃণমূল কংগ্রেস থেকে ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করেছেন এক কালে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিশ্বস্ত সেনাপতি মুকুল রায়। এরপর থেকেই গেরুয়া শিবিরে মুকুলবাবুর উপস্থিতি নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছিল রাজনৈতিক মহলে। তৃণমূল নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায় কটাক্ষের সুরে মুকুল রায় কে আক্রমন করে বলেছিলেন, “বিজেপিতে যোগ দিয়ে পদ পাওয়া অত সোজা নয়”। তবে পদ্ম শিবিরে যোগ দেওয়ার পর সদ্য সমাপ্ত পঞ্চায়েত নির্বাচনে দল থেকে দায়িত্ব পাওয়া বা কলকাতা বিজেপি রাজ্য সদর দপ্তরে নিজস্ব ঘরে উপবিষ্ট হওয়া। যেগুলি ক্রমশই নজরে আসছিল রাজনৈতিক মহলের। কিন্তু এবার এবিষয়ে আলোচনা বৃদ্ধি পেল আরো অনেকখানি।
সূত্রের খবর আগামী ১৭ ও ১৮ই আগস্ট দিল্লিতে বিজেপি সর্বভারতীয় সাংগঠনিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। দলীয় নিয়ম অনুযায়ী সেই বৈঠকে পশ্চিমবঙ্গ থেকে তিন জন অর্থাৎ পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, জাতীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা ও সাধারণ সম্পাদক সুব্রত চট্টোপাধ্যায়ের উপস্থিত থাকার কথা। কিন্তু রাজনৈতিক মহলের গুঞ্জন বাড়িয়ে দিয়ে এবারের সেই বৈঠকে উল্লেখ্য ৩ নেতৃত্ব ছাড়াও বাংলা থেকে দেখা যেতে চলেছে আরও দুটি মুখ। যারা হলেন মুকুল রায় ও জয় বন্দোপাধ্যায়।(Mukul Roy ger promotion )
রাজ্য বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের মতে ‘এই জায়গা যে মুকুল রায় পেতে চলেছেন তা এককথায় চূড়ান্তই ছিল’। উল্লেখ্য, বিজেপিতে যোগদান করলেও এখনো পর্যন্ত দলে মুকুল রায় কোনো পদে নেই। যা নিয়ে পদ্ম শিবিরে আলোচনাও চলছে বেশ কিছুদিন ধরেই। আর তারই মধ্য মুকুল রায়ের এই ডাক পাওয়া রাজনৈতিক মহলের আলোচনার বিষয় কিছুটা হলেও বিস্তার লাভ করলো।
সূত্র মারফত খবর, এবার বিজেপিতে পদন্নতি হতে চলেছে মুকুল রায়ের। দলের জাতীয় স্তরে কোন পদে আসীন হতে পারেন মুকুল বাবু। রাজনৈতিক মহলের মতে, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে প্রতিটি রাজ্যের সাথে বাংলাও যে বিজেপির অন্যতম লক্ষ্য তা বলাই বাহুল্য। আর এবার বাংলাতে মুকুল রায়ের রাজনৈতিক দক্ষতাকে কাজে লাগাতে চাইছে মোদী শাহ্ জুটি। ইতিমধ্যেই বহুবার বাংলা সফরে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ও বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ্। যা থেকেই বোঝা যাচ্ছে আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাংলাকে কতটা গুরুত্ব দিতে প্রস্তুত গেরুয়া শিবির।
আর এই নির্বাচনে দেশ থেকে যে কয়েকটি আসনে পরাজিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তা উত্তর-পূর্ব ভারত থেকেই তুলে নিতে চাইছে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব। এমনটাই মত রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের।

আরও জানতে চোখ রাখুন আমাদের পোর্টালে Nabadin.com
আমাদের সাথে থাকতে লাইক করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com
খবরের সাথে থাকতে ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News