শহর ও শহরতলি সূচনা

ঐতিহ্যবাহী হিন্দু হোস্টেলে চলছে সংস্কারের কাজ

“হিন্দু হোস্টেল ফিরিয়ে দাও” এই স্লোগানেই ফের উত্তপ্ত প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়। হোস্টেলের দাবীতে এখনো বিশ্ববিদ্যালয় ক্যম্পাসে ছাত্র বিক্ষোভ চলছে বলে খবর। গত শুক্রবার এপ্রসঙ্গে উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়া জানিয়েছিলেন “এখনো হিন্দু হোস্টেল সম্পুর্ন বাসযোগ্য হয়নি। কাজ চলছে, তা শেষ হলেই ছাত্রদের জন্য খুলে দেওয়া হবে”। যদিও বিক্ষোভ তুলতে অনড় আন্দোনকারীরা। তারা জানিয়েছে, “যতদিন পর্যন্ত হিন্দু হোস্টেল ছাত্রদের ফিরিয়ে দেওয়া না হবে, ততদিন পর্যন্ত এভাবেই বিক্ষোভ কর্মসূচী চলবে”। শুধু তাই নয়, বিগত চারদিন ধরে বিক্ষোভকারীরা স্নান, খাওয়াদাওয়া, এমনকি বিছানা বালিস নিয়ে ঘুমোচ্ছেন বিশ্ববিদ্যালয় ক্যম্পাসেই। দাবী পূরন না হওয়া পর্যন্ত এভাবেই অবস্থান চলবে বলে জানিয়েছেন তারা। উল্লেখ্য গত তিন বছর ধরে কাজ চললেও এখনও সংস্কারের কাজ সম্পুর্ন শেষ হয়নি হিন্দু হোস্টেলের।

প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোনকারীরা
প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোনকারীরা

সেখানে মোট যে ৩টি ব্লক আছে তার মধ্যে ১টি ব্লকের কাজ মোটের ওপর শেষ হলেও বাকি তিনটির কাজ কবে শেষ হবে, সে ব্যপারে নিশ্চিত ভাবে কিছু বলতে পারছে না প্রেসিডেন্সি কতৃপক্ষ। “অতএব এই অবস্থায় কোন ভাবেই ছাত্রদের জন্য হিন্দু হোস্টেল খুলে দেওয়া সম্ভব নয়” বলে জানিয়েছেন উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়া। পাশাপাশি তিনি বলেন, “এমন নয় যে ছাত্রদের জন্য বিকল্প কোন ব্যবস্হা নেই। তাদের জন্য রাজারহাটে হোস্টেলের ব্যবস্হা আছে। বিনামূল্যে গাড়িরও ব্যবস্থা রয়েছে সেখানে যাতায়াতের জন্য”। যদিও আন্দোলনকারী পড়ুয়াদের দাবী, “চলতি বছর গত ১৫ই জুলাই হিন্দু হোস্টেল সংস্কারের কাজ সম্পুর্ন শেষ হয়ে যাবে, এমনি বলা হয়েছিল”। “কিন্তু এখনও তা শেষ হয়নি, উল্টে কতৃপক্ষ বলছে কবে কাজ শেষ হবে তা বলা সম্ভব নয়”। “এই পরিস্হিতিতে আমরা আন্দোলনে নামতে বাধ্য হয়েছি, যতদিন দাবী পূরন না হবে আমরা এই অবস্থান থেকে সরবো না”।(Presidency University Hindu Hostel )

আরও জানতে চোখ রাখুন আমাদের পোর্টালে Nabadin.com
আমাদের সাথে থাকতে লাইক করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com
খবরের সাথে থাকতে ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *