উত্তপ্ত ইসলামপুর, পরিস্থিতি সম্পর্কে ফোনে “নবদিন” কে কি জানালেন স্থানীয় কাউন্সিলর?

রাজ্যজুরে বিজেপি ডাকা বন্ধে আংশিক প্রভাব লক্ষ্য করা গেল। বন্ধ কে কেন্দ্র করে দিনভর উত্তপ্ত রইলো উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুর। দফায় দফায় বন্ধ সমর্থকদের সাথে ঝামেলায় জড়িয়ে পরে শাসক শিবির। অন্যদিকে বন্ধ সমর্থকদের বিরুদ্ধে বাস ভাঙচুর ও দোকান জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বিশাল পুলিশ বাহিনী। পুলিশকে লক্ষ্য করে বন্ধ সমর্থকরা ইট ছুড়লে পাল্টা টিয়ার গ্যাসের সেল ও রবার বুলেটের মাধ্যমে অবস্থা নিয়ন্ত্রণে আমার চেষ্ঠা করা হয়। এখনও উত্তেজনা রয়েছে এলাকায়। তবে ঝামেলার জন্য দীর্ঘক্ষন অবরুদ্ধ থাকে ৩১ নম্বর জাতীয় সড়ক। নাজেহাল হতে হয় সাধারণ মানুষকে। গোটা পরিস্থিতি সম্পর্কে স্থানীয় একজন রাজনীতিকের সাথে ফোনে কথা বলে “নবদিন”। তিনি জানিয়েছেন, “সকাল থেকেই বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি ইসলামপুরে”। “বন্ধ কিছুটা সফল হলেও ভয় পেয়ে মানুষ কর্মস্থলের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেনি”। “বন্ধ সমর্থকদের সাথে শাসক দলের কর্মীরা সংঘাতে জড়িয়েছেন”। “বাস ভাঙচুর ও দোকানে আগুন লাগিয়ে দেওয়ার ঘটনা সত্যি”। “অবস্থা সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পুলিশ এলে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হয়ে উঠেছিল”। “এখনও পরিস্থিতি সম্পুর্ন স্বাভাবিক হয়নি”।

করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com
আরও জানতে চোখ রাখুন আমাদের পোর্টালে Nabadin.com
ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News

আপনি কি অবগত আছেন?

অনুসরণঃ

#

আধার মামলায় রায় দিল সুপ্রিম কোর্ট, বিপাকে মোদী সরকার

আধার মামলার রায় ঘোষনা করলো সুপ্রিম কোর্ট। “ব্যাঙ্কের সাথে আধার লিংক সংযোগ করা এবং মোবাইলের সাথে আধার লিংক সংযোগ করা কোনটিই বাধ্যতামূলক নয়” জানিয়ে দিল দেশের শীর্ষ আদালত। রায় দিয়ে বলা হয়েছে, “প্যানের সাথে আধার সংযুক্তিকরন ও আয়কর রিটার্নের ক্ষেত্রে আধার কার্ড বাধ্যতামূলক হবে”। পাশাপাশি বলা হয়েছে, “অনুপ্রবেশকারীরা আধার কার্ডের অধিকারী হবে না”। “শিক্ষাঙ্গনে পাঠ শুরু করার ক্ষেত্রে জরুরী নয় আধার কার্ড”। উল্লেখ্য কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার পর আধার কার্ড সংক্রান্ত বিষয় নজরদারী শুরু করে এনডিএ সরকার। আগামী বছরই দেশে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে লোকসভা নির্বাচন। তার আগে শীর্ষ আদালতের এই রায় স্বাভাবিকভাবেই বিপাকে ফেলবে মোদী সরকার কে। এমনি মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com
আরও জানতে চোখ রাখুন আমাদের পোর্টালে Nabadin.com
ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News

আপনি কি অবগত আছেন?

অনুসরণঃ

#National 

রাজ্যে ফের গুলিবিদ্ধ ছাত্র, অভিযোগ উঠলো পুলিশের বিরুদ্ধে

বন্ধ এর প্রাক্কালে মুর্শিদাবাদে গুলিবিদ্ধ ছাত্র।
সূত্রের খবর, আজ বন্ধ চলাকালীন মুর্শিদাবাদের সাঁতুরি এলাকায় পুলিশের সাথে সংঘাতে জড়িয়ে পরেন বিজেপি কর্মীরা। গেরুয়া নেতৃত্বের অভিযোগ, “বন্ধ এর সমর্থনে আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচী গ্রহন করেছিলাম”। “পুলিশ এসে জানায় বন্ধ করা যাবে না”। “সেখান থেকে বাকবিতণ্ডার সূচনা”। “পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে বুঝতে পেরেই পুলিশ গুলি চালায়”। “স্থানীয় এক ছাত্র গুলিবিদ্ধ হয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসকধীন”। উল্লেখ্য, ইসলামপুরের গুলিবিদ্ধ হয়ে ছাত্র মৃত্যুর প্রতিবাদে এই বন্ধ। আর সেখানে পুনরায় পুলিশের বিরুদ্ধে গুলি চালানোর অভিযোগ। যা নিয়ে এই মুহূর্তে আলোচনায় উত্তাল বিভিন্ন মহল।

করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com
আরও জানতে চোখ রাখুন আমাদের পোর্টালে Nabadin.com
ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News

আপনি কি অবগত আছেন?

অনুসরণঃ

#State

তৃনমূল বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত হাবরা

মছলন্দপু্র রেল গেট এলাকায় বন্ধকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ। তৃনমূলের কর্মীদের সাথে সংঘাতে জড়িয়ে পরেন বিজেপি সমর্থকরা। “শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভ চলছিল, হঠাৎই তাদের উপর হামলা চালান হয়’ এমনই অভিযোগ করছে বিজেপি নেতৃত্ব। ঘটনাস্থলে উপস্থিত থাকলেও পুলিশ দর্শকের ভূমিকা প‍ালন করেছে বলে দাবী তাদের। ঘটনাস্থল থেকে আহত অবস্থায় ছয় ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। একজন গুরুতর অবস্থায় সেখানে চিকিৎসাধীন।
(Habra TMC BJP clash)

করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com
আরও জানতে চোখ রাখুন আমাদের পোর্টালে Nabadin.com
ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News

আপনি কি অবগত আছেন?

অনুসরণঃ

#State

শিয়ালদা মেন শাখার ইছাপুর রেল স্টেশনে রেল অবরোধ

শিয়ালদা মেন শাখার ইছাপুর রেল স্টেশনে রেল অবরোধ করল বিজেপি সমর্থকরা । ফলে শিয়ালদা মেন শাখার ট্রেন চলাচলে বিঘ্ন ঘটে। নোয়াপাড়া থানার পুলিশ গিয়ে ট্রেন লাইন থেকে অবরোধকারীদের হঠিয়ে দেয়। পরে ফের ইছাপুর স্টেশনে রেল অবরোধ করে বিজেপির কর্মী সমর্থকরা।

করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com
আরও জানতে চোখ রাখুন আমাদের পোর্টালে Nabadin.com
ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News

আপনি কি অবগত আছেন?

অনুসরণঃ

#State 

 

বন্ধের দিন নামছে কলকাতায় অতিরিক্ত ৪০০০ পুলিশ

মুখ্যমন্ত্রী বহুবার বলেছেন, “বনধ করা যাবে না এরাজ্যে।” মুখ্যমন্ত্রী বিদেশ সফরে থাকলেও, বনধ নিয়ে কড়া মনোভাবের কথা জানিয়ে দিয়েছে নবান্ন। প্রতি জেলায় খোলা হচ্ছে কন্ট্রোলরুম। নবান্নেও খোলা হচ্ছে। পরিবহন দপ্তর অতিরিক্ত বাস চালানোর কথা জানিয়েছে। শহর কলকাতার জনজীবন স্বাভাবিক রাখতে সক্রিয়ভাবে পথে নামবে পুলিশ।
লালবাজার সূত্রের খবর, আজ অতিরিক্ত পুলিশের পাশাপাশি পথে থাকবেন ২১ জন DC পদমর্যাদার অফিসার। থাকবেন ৭০ জন অ্যাসিস্ট্যান্ট পুলিশ কমিশনার। শহরের বিভিন্ন বাজার, অফিস চত্বর, বাস ডিপো, ফেরিঘাট, মেট্রো স্টেশন মিলিয়ে মোট ৪২৭টি পুলিশ পিকেটের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ডিভিশনাল মোবাইল ভ্যান থাকবে ২৫টি। ২৫টি HRFS-ও তৈরি থাকবে। প্রতিটি ডিভিশনে রিজ়ার্ভ ফোর্স থাকবে। প্রস্তুত থাকবে RAF-ও।বনধে কলকাতায় কোনও বিশৃঙ্খলা তৈরির চেষ্টা বরদাস্ত করা হবে না। গতকাল একথা জানান কলকাতার অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার সুপ্রতিম সরকার। জনজীবন স্বাভাবিক রাখতে আজ পথে নামবে পুলিশবাহিনী। জানা গেছে, অতিরিক্ত ৪০০০ পুলিশকর্মী মোতায়েন করা হয়েছে।

করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com
আরও জানতে চোখ রাখুন আমাদের পোর্টালে Nabadin.com
ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News

আপনি কি অবগত আছেন?

অনুসরণঃ

#State 

 

বন্ধের দিন কলকাতায় অতিরিক্ত ৮০০ বাস

বিজেপির ডাকা বনধে যাতে রাস্তায় বেরিয়ে কারও কোনও অসুবিধা না হয়, সেজন্য বুধবার অতিরিক্ত বাস, ট্রাম, জলযান চালাবে পরিবহণ দফতর। পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী জানিয়েছেন, পথে চার হাজার সরকারি বাস থাকবে৷ অন্যদিনের তুলনায় এদিন ৮০০ বাস বেশি থাকবে রাস্তায়৷ শিয়ালদহ, হাওড়া, বিমানবন্দরে অতিরিক্ত বাস চলবে৷ কলকাতায় অতিরিক্ত ট্রাম চলবে ৫০টি৷এছাড়া, কলকাতা ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় থাকছে বাড়তি জলযান৷ ৪৫টি অতিরিক্ত জলযান চলবে৷রাজ্য সরকার জানিয়েছে, গাড়ি ভাঙচুরে হলে বিমার ব্যবস্থা করা হবে৷প্রত্যেক জেলা ও কলকাতায় কন্ট্রোল রুম খোলা থাকবে৷

করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com
আরও জানতে চোখ রাখুন আমাদের পোর্টালে Nabadin.com
ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News

আপনি কি অবগত আছেন?

অনুসরণঃ

#Sports #Football #East Bengal

প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে শহরে এনরিকে, উল্লাসিত লাল হলুদ শিবির

প্রতীক্ষার অবসান। কলকাতায় পদার্পন করলেন মেক্সিকান স্ট্রাইকার এনরিকে এস্কুইদা। কিছুক্ষণ আগেই তিনি দমদম বিমানবন্দরে পা রেখেছেন। ইতিমধ্যেই তাকে ঘিরে লাল হলুদ সমর্থকদের উল্লাস চোখে পরেছে। উল্লেখ্য বেশকিছু দিন ধরেই তার কলকাতা আসার কথা চলছিল কিন্তু ভিসা সমস্যার দরুন তারিখ পরিবর্তিত হয়। ঠিক ছিল গতকালই তিনি শহরে চলে আসবেন। তবে শেষ মুহূর্তে বিমান বিভ্রাটের দরুন তা সম্ভব হয়নি। অবশেষে আজ সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে কলকাতা বিমানবন্দরে পৌঁছালেন ইস্টবেঙ্গলের এই নতুন স্ট্রাইকার।
(Enrique Esqueda in Dum Dum Airport)

করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com
আরও জানতে চোখ রাখুন আমাদের পোর্টালে Nabadin.com
ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News

আপনি কি অবগত আছেন?

অনুসরণঃ

#Sports #Football #East Bengal

বার্সেলোনার বিরুদ্ধে ইস্টবেঙ্গলের সমর্থন চাইলেন বাগান কোচ

শহরে মোহনবাগান লেজেন্ডস্ এর সাথে ম্যাচ খেলতে আসছে বার্সা লেজেন্ডস্। যা নিয়ে এই মুহূর্তে বাংলার ক্রীড়া মহলে উন্মাদনা তুঙ্গে। আর তার মধ্যেই এবার মুখ খুললেন মোহনবাগান লেজেন্ডস্ কোচ সুব্রত ভট্টাচার্য। তিনি বলেন, “বার্সার প্রাক্তনীদের বিরুদ্ধে আমরা মাঠে নামতে প্রস্তুত”। “অমিত দাস, দুল‍াল বিশ্বাস, সন্দীপ নন্দীর মতো প্রাক্তন ফুটবলাররা ইতিমধ্যেই অনুশীলনে অংশ নিয়েছেন”। “কিন্তু সমস্যা হয়েছে অন্য জায়গায়”। সুব্রত বাবুর মতে, “মোহনবাগান লেজেন্ডস্ নামটিতে পরিবর্তন আসুক”। “নাম হোক বেঙ্গল লেজেন্ডস্”। “প্রথম অবস্থায় সকলে খেলার ইচ্ছে প্রকাশ করলেও এই মুহূর্তে দু এক জন খেলার ক্ষেত্রে অনিচ্ছা প্রকাশ করেছেন”। “দলের অন্যতম ভরসা ব্যারেটো ম্যাচে থাকবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছেন”। “এই পরিস্থিতিতে যদি ইস্টবেঙ্গল ও মহামেডানের প্রাক্তন খেলোয়াড়রা দলে যোগ দেন তবে বার্সা লেজেন্ডস্ এর বিরুদ্ধে আরো ভালো লড়াই দেখতে পারবেন দর্শকরা”। “তার জন্য মোহনবাগান লেজেন্ডস্ নামের পরিবর্তে আমি বেঙ্গল লেজেন্ডস্ নাম প্রস্তাব করছি”। “পাশাপাশি বিষয়টিকে বাস্তব রুপ দেওয়া সম্ভব হলে শুধু মোহনবাগান নয়, এই ম্যাচের উদ্দীপনা ছড়িয়ে পরবে সব দলের সমর্থকদের মধ্যে”। 

করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com
আরও জানতে চোখ রাখুন আমাদের পোর্টালে Nabadin.com
ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News

আপনি কি অবগত আছেন?

অনুসরণঃ

#State #Politics 

“বদলা আমরা নেবই” দিলীপ ঘোষ

উত্তপ্ত উত্তর দিনাজপুরে ফের বিজেপি র কর্মসূচী। ইসলামপুরে এদিন দলীয় কর্মসূচী তে যোগ দেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বক্তব্য শুরুতেই বিজেপি উত্তর দিনাজপুরে জেলা সভাপতি শঙ্কর চক্রবর্তীর মন্তব্য কে সমর্থন করেন দিলীপ বাবু। তিনি বলেন, “দাড়িভিটে তে চোরের মতো গ্রামে ঢুকছে পুলিশ”। “সেই চোরদের ধরে গাছে বেধে রাখার কথা বলেছিলেন শঙ্কর বাবু”। “তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে”। “উর্দু পাঠে কোন সমস্যা নেই, কিন্তু তার প্রভাব বাংলা কে কেন সহ্য করতে হবে”? “গুলি চালিয়েছে পুলিশ”। “যদি তা না হয়, তবে এখনও গুলি চালনায় অভিযুক্তদের গ্রেফতার করেনি কেন পুলিশ”? “রাজ্যবাসীকে পুলিশের নৃশংস অত্যাচার সহ্য করতে হচ্ছে”। “পুলিশ আর নিরপেক্ষ নেই”। “শাসকের দলের হয়ে কাজ করছে”। “বদলা আমরা নেবই”।

করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com
আরও জানতে চোখ রাখুন আমাদের পোর্টালে Nabadin.com
ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News

আপনি কি অবগত আছেন?

অনুসরণঃ

#State #Politics