ISRO
featured post রাষ্ট্র সূচনা

সাফল্যের হার-তো ছিল মাত্র ২৪ শতাংশ, ইসরো-র পাশেই গোটা দেশ

Focal Point:

  • ISRO Goes With Only 24% Chance To The Moon Mission

হতাশ সকলেই। ইসরো-র (ISRO) অন্দরমহল থমথমে। তবে ব্যর্থতার এই আশঙ্কা বিজ্ঞানীদের ছিলই। তারা আগেই জানিয়েছিলেন, ‘চাঁদের দক্ষিন মেরুতে ল্যান্ডার রোভারের সফলভাবে নামার কাজটি যথেষ্ট কঠিন’।
ইসরোর দীর্ঘদিনের গবেষণার ফল এই চন্দ্রযান-২। এই চন্দ্রযানের ল্যান্ডার বিক্রমের প্রযুক্তিতেই ত্রুটি রয়ে গেছে বলে মনে করা হচ্ছে।
চাঁদে পাঠানোর আগে তামিলনাড়ুর নামাক্কালে চাঁদের মত কৃত্রিম মাটি ও পরিবেশ তৈরি করেছিলেন বিজ্ঞানীরা। সেখানে বারবার পরীক্ষা হয় অবতরণের। সেই পরীক্ষার প্রথমদিকে মোটেই সফল হচ্ছিলনা বিক্রম। পরে কিছুটা বাড়ে সাফল্যের হার। শেষমেশ এই পরীক্ষায় বিক্রমের সাফল্যের হার ছিল মাত্র ২৪%। আর তাতেই কেন মূল অভিযানে সবুজ সংকেত দিয়ে দিলেন ইসরোর চেয়্যারম্যান কে শিবন? এমন প্রশ্ন ওঠা স্বাভাবিক। তবে
চন্দ্র‍যান-২ ভারতের স্বপ্নের প্রকল্প। একইসাথে সম্মানেরও। কয়েকশো কোটি টাকা খরচা হয়েছে এর পিছনে। তাই আশার বুঁদ হয়েছিলেন প্রত্যেকেই। যদিও চাঁদের ভূ-পৃষ্ঠের মাত্র-২ কিলোমিটার দুরত্ব থেকে বিক্রম-এর সাথে যোগাযোগ ছিন্ন হয়ে যাওয়াকে মূল অভিযানের ৫% অসফল বলেই ধরা হচ্ছে। সেক্ষেত্রে সব মিলিয়ে সাফল্য অনেকটাই। কিন্তু মিশন সম্পূর্ণ না হওয়াতে সমালোচনা হবেই।
সূত্রের খবর, বুধবার শেষ মুহূর্তে চন্দ্রপৃষ্ঠ থেকে বিক্রমের দুরত্ব ছিল ৩৫ কিলোমিটার ও অরবিটারের দুরত্ব ছিল ২০০ কিলোমিটার। শেষ মুহূর্তে অরবিটার-কে ১০০ কিলোমিটার দুরত্বে নামিয়ে আনা হয়। সেই সিদ্ধান্ত নিয়েও উঠছে প্রশ্ন। তবে কি বিজ্ঞানীরা আঁচ করতে পারছিলেন বিক্রম অসফল হতে পারে, তাই অরবিটারকে অক্ষত রেখে তাকে ফিরিয়ে আনার দিকে বেশি গুরুত্ব দেয় ইসরো? যাতে অরবিটার ফিরে এসে বিক্রম সম্পর্কে তথ্য দিতে পারে। শেষমুহুর্তের এই পরিকল্পনার বদলের পোগ্রামিং ছিল না বিক্রমে, তাই এই ঝুঁকি কেন, সংশয় বিজ্ঞান মহলে। যদিও, দুদিন পর অরবিটার ফিরে এলে, কিছুনাকিছু তথ্য জানা যাবেই। তাই এখনই আশাহত হতে চাইছেন না কেউ। যদিও প্রধানমন্ত্রী থেকে গোটা দেশ ইসরো-র পাশেই দাঁড়িয়েছেন।

লাইক করুণ আমাদের ফেসবুক পেজ Nabadin.com 

ফলো করুণ আমাদের টুইটারে Nabadin24News

সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল Nabadin News

সাম্প্রতিক শিরোনাম:

অনুসরণঃ

#National #ISRO

পাঠকের প্রতিক্রিয়া একান্ত কাম্য । নিচে কমেন্ট বক্সে জানান আপনার মতামত